Thursday, August 6, 2020

উন্মেষ : শঙ্কর চ্যাটার্জী স্মারক গ্রন্থ


ন্মেষ’ নিয়মিত কোনো পত্রিকা নয়। স্মারক গ্রন্থ। ভাটি অসমের বিজনীর জনপ্রিয় শিক্ষাবিদ ও সমাজকর্মী শঙ্কর চ্যাটার্জির মৃত্যুতে তাঁর অনুরাগীরা এটি প্রকাশ করেন, সম্পাদনা করে জমশের আলি। পশ্চিম বাংলার হালিশহরে জন্ম হলেও আকৈশোর বাকি জীবন কেটেছে ভাটি অসমে। ইতিহাসে স্নাতকোত্তর প্রয়াত চ্যাটার্জি একাধিক স্কুলে শিক্ষকতা করেছেন। ছাত্রদের মধ্যে অনেক জনপ্রিয় ছিলেন। বামপন্থী মতাদর্শে দীক্ষিত ছিলেন। যদিও জীবনের শেষ দিকে কোনো দলের সংস্পর্শে ছিলেন না। কিন্তু ভাষা-সম্প্রদায় নির্বিশেষে মানুষের সেবাতে ছিলেন নিয়োজিত প্রাণ। বাদবাকি সম্পাদক এবং লেখকেরা নিজেরাই জানিয়েছেন।





        বৈশাখ, ১৪২৬ বাংলা তথা এপ্রিল ২০১৯-এ স্বল্পকালীন রোগভোগের পরে  তিনি একরকম অকালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলে চিরাং জেলার তাঁর স্বজনদের কাছে ছিল এক বড় আঘাত। তাঁরাই এই ত্রৈভাষিক স্মারক পত্রিকাটি প্রকাশ করেন। কাঠের নৌকাতে চড়াবার যোগ্য করে পাঠান সম্পাদনা সমিতির অন্যতম সদস্য পারিজাত নন্দ ঘোষ।

        পুরো কাগজটি  আপনি নির্বিঘ্নে এখানে পড়তে পাবেন। আপনার কম্পিউটারের পুরো পর্দা জুড়ে পড়তে পারেন। নামিয়ে নিয়ে পরে অবসরেও পড়তে পারেন। তার জন্যে নিচের বোতামগুলো ব্যবহার করুন।   মোবাইলে পড়লে ব্লগার এবং স্ক্রাইবড নামিয়ে নিলে সুবিধে।

উন্মেষ : শঙ্কর চ্যাটার্জী স... by Sushanta Kar on Scribd

Wednesday, August 5, 2020

প্রতাপ : একাদশ সংখ্যা, জুলাই ২০২০




 

প্রতাপ’ বেরোয় শিলচর থেকে শৈলেন দাসের সম্পাদনাতে। এর আগেও পাঁচটি সংখ্যা চড়েছিল কাঠের নৌকাতে। এবারেরটি ১১শ সংখ্যা।  কোভিড ১৯ অতিমারি। জনজীবনের স্বাভাবিক ছন্দে যখন হাজারো বিপত্তি, স্বাভাবিক ভাবেই ছাপা সংস্করণ হিসেবে বেরোবার পথে কাঁটা প্রচুর। কিন্তু সম্পাদক দমবার পাত্র নন। ২৫ পৃষ্ঠার সংখ্যাটি নিজেই সাজিয়ে নিয়েছেন বৈদ্যুতিন সংস্করণ হিসেবে। এবং সরাসরি প্রকাশিত হচ্ছে 'কাঠের নৌকা'তে।

     সাতাশজন কবির সাতাশটি কবিতা ও একটি অনুগল্প দিয়ে সংখ্যাটি সাজিয়েছেন শৈলেন। আশা করছি আপনাদের ভালো লাগবে। তাঁরই গোগোল ড্রাইভে কাগজটি রয়েছে। সেখান থেকেই কাঠের নৌকাতে চড়ানো হয়েছে। আপনারা কম্প্যুটার বা মোবাইলের পুরো পর্দা জুড়ে পড়তে পারেন। নামিয়ে নিয়ে পরেও পড়তে পারেন।


Saturday, August 1, 2020

শাঙ্খিক : দ্বাদশ বর্ষ, জুলাই ২০২০

"শাঙ্খিক'-এর এটি দ্বিতীয় সংখ্যা-- কাঠের নৌকাতে চড়ল। বেরোয় উত্তর বাংলার কোচবিহার থেকে। এটি  দ্বাদশ বর্ষ, জুলাই ২০২০ সংখ্যা। মূল সম্পাদক সুকান্ত দাস। সম্পাদনা সহযোগী দলে আছেন অসম বাংলার আরো অনেকে। 
             বেশ কিছু সুখপাঠ্য কবিতা , দুটি গল্পের সঙ্গে রয়েছে একাধিক গদ্য। বেরুচ্ছে মরিচঝাঁপি নিয়ে অনূদিত ধারাবাহিক গদ্য। রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে আঠারো জন লেখক কলম চালিয়েছেন নানান রসে নানান রূপে। তাঁদের মধ্যে রিন্টু কার্যী, গোপেশ দাস, রাজীব দত্ত, সৌমিক ঘোষ, শুভম কর্মকার, চন্দ্রা সরকার, উজ্জ্বলা ওঁরাও, জ্যোতিরূপ ওঁরাও, মিঠুন দাস নিজেরাও আঁকিয়ে। কিছু সংগৃহীত ছবিও আছে। বাকিগুলোকে সুন্দর ছবিতে সাজিয়েছেন মনতোষ বসাক। ফলে কাগজটি হয়ে উঠেছে শুধু পড়বার নয়, দেখবারও কাগজ। প্রচ্ছদ এঁকেছেন রিণ্টু কার্যী।
সূচিপত্র এখানে দেখুন ⬇️⬇️


               সম্পাদক তাঁর গোগোল ড্রাইভেও তুলে রেখেছেন এখানে।  সেখান থেকেই এবারে চড়ল সরসরি কাঠের নৌকাতে। চড়ল, কেননা আমরা "ঈশানের পুঞ্জমেঘ' পরিবার উত্তরবাংলাকে বড় অর্থে পূর্বোত্তর ভারতেই ধরি। এমন আগেও দুই একটি চড়েছে। আগামীতেও সেখানকার আরো কাগজ এলে আমরা চড়াবো।
           পুরো কাগজটাই আপনি এখানে পড়তে পারেন, নামিয়ে নিয়ে পরেও পড়তে পারেন।  পড়তে থাকুন।



Related Posts with Thumbnails